আজ ১২ই আশ্বিন, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, ২৭শে সেপ্টেম্বর, ২০২০ ইং

দাগনভূঞায় একদিনে আট জনের মৃত্যু!

দেওয়ান মো. ইকবাল:

অবাক করা হলেও সত্য। গতকাল ২৫ জুন বৃহস্পতিবার ফেনীর দাগনভূঞায় এক দিনে ৮ জনের মৃত্যু হয়েছে।

আসুন অবাক করা বিষয়টি একটু ক্লিয়ার করা যাক। দাগনভূঞাবাসী ফজর নামাজ আদায় শেষে ভোরে ঘুম থেকে উঠেই জানতে পারে উপজেলার বেকের বাজার নামক স্থানে ডাকাতদল ডাকাতি করার সময় বাজারে থাকা নৈশপ্রহরী, তাদের বাধা দিতে গিয়ে শ্বাসরুদ্ধ হয়ে মৃত্যু হয়।

মুহুর্তেই পাল্টে যায় চিত্র, পুলিশ ও জনতার সহযোগিতায় পালাতে পারেনি ডাকাতদল। এক পর্যায় পুলিশের গোলাগুলিতে প্রাণ হারায় তিন ডাকাত সদস্য।

সকাল শেষে দুপুর ঘনিয়ে এলে জানাযায়, ইয়ারপুরের এক বাড়িতে ১২ বছরের এক কন্যা শিশুর আচমকা গলায় ফাঁস পড়ে মৃত্যু হয়। বিষয়টি জানতে ছুটে গেলাম থানায়। জানতে পারলাম, বাবা মার অবর্তমানে দুই ভাই-বোনের দুষ্টামির এক পর্যায়ে ওড়না দিয়ে গলায় ফাঁস পড়ে যায় মেয়েটির। কিছুক্ষণের মধ্যেই মৃত্যু হয় এই নাবালিকা শিশুটির।

এর কিছুক্ষণপর উপজেলার সিন্ধুরপুরের মাছিমপুর গ্রামে জমি থেকে উদ্বার হয় মো. ইউসুফ নামের এক যুবক। তার মৃত্যুটাও হয়ে ওঠলো আরেক রহস্য।

বিকাল সময়টা অনেকের বিশ্রামের সময় হলেও মৃত্যু সেটা বুঝে না। আসুন বুঝিয়ে বলি। খবর আসলো একই উপজেলার ৫নং ইয়াকুবপুর ইউনিয়নের এনায়েত নগর গ্রামে শ্বশুর বাড়ির লোকদের অবহেলায় মা ও শিশুর দুইজনেরই মৃত্যু হয়। বিষয়টি নিশ্চিত হতে গেলাম সেখানে। জানতে পারলাম সেই নিষ্ঠুর শ্বশুর বাড়ির লোকদের বর্বরতা। শুনেছি থানায় অভিযোগ করবে মেয়ের স্বজনরা।

Comments are closed.

     এই বিভাগের আরো সংবাদ