আজ ৫ই মাঘ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ১৯শে জানুয়ারি, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ

মামলার সাক্ষী হতে না চাওয়ায় ভাড়াটিয়াকে কুপিয়েছে বাড়ির মালিক!

মোহাম্মদ তাজুল ইসলাম, গাজীপুরঃ

গাজীপুরের শ্রীপুরে মিথ্যা মামলার সাক্ষী হতে না চাওয়ার ভাড়াটিয়াকে কুপিয়েছে বাড়ির মালিক।
বৃহস্পতিবার (১৩ জানুয়ারি) উপজেলার মুলাইদ (রঙ্গিলা বাজার) এলাকায় এই ঘটনা ঘটেছে।

নির্যাতনকারী বাড়ির মালিক কুদ্দুছ শেখের ছেলে আসাদ মিয়া (৩৮)।
নির্যাতনের শিকার দিনমজুর ময়মনসিংহের ফুলপুর থানার শিলপুর গ্রামের সুরুজ আলীর ছেলে আজহারুল ইসলাম ও তার স্ত্রী পোশাক শ্রমিক নাছিমা। আহত অবস্থায় তাঁদের কে উদ্ধার করে শ্রীপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে পাঠানো হয়েছে। বর্তমানে তারা চিকিৎসাধীন অবস্থায় রয়েছেন।

এ ব্যাপারে বাড়ির মালিক আসাদকে অভিযুক্ত করে নির্যাতনের শিকার আজহারুল ইসলাম শ্রীপুর থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন।

স্থানীয় সূত্রে জানাযায়, গত দুই মাস ধরে আসাদের মালিকানাধীন বাড়িতে ভাড়া থাকছেন ওই দম্পতি। সম্প্রতি আসাদ বাদী হয়ে এলাকাবাসীর বিরুদ্ধে মিথ্যা মামলা দায়ের করেছেন গাজীপুর কোর্টে। ওই মামলা পিবিআই তদন্ত করছেন। ওই মামলার মিথ্যা সাক্ষী দিতে জোর করা হয় ওই দম্পতিকে। তাদেরকে টাকা পয়সা দিয়ে মিথ্যা সাক্ষী দিতে বলা হয় কিন্তু তারা সাক্ষী দিতে রাজি না বলে জানিয়ে দেয়। এতে আসাদ ক্ষিপ্ত হয়ে ভাড়াটিয়া দম্পতি কে অশ্লীল ভাষায় গালিগালাজ ও মারধরের হুমকি দিতে থাকে।

তারই ধারাবাহিকতায় আজ বৃহস্পতিবার (১৩ জানুয়ারি) সকালে ধারালো দা নিয়ে হঠাৎ ভাড়াটে আজহারুল ইসলামের ডান হাতে কুপ মারে তার স্ত্রী নাসিমা এগিয়ে আসলে তাকে শ্লীলতাহানিও অর্ধনগ্ন করে ফেলে।

আহত দম্পতি প্রশাসন ও উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের কাছে এ বিষয়ে সু-বিচারের দাবি জানান।

অভিযুক্ত বাড়িওয়ালা আসাদ ডান্ডি বলেন, আমি ভাড়াটিয়াকে বাড়ি ছেড়ে চলে যাওয়ার জন্য বলেছি। তাঁরাও আমাকে মারধর করেছে।

শ্রীপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ওসি খোন্দকার ইমাম হোসেন জানান, এ ব্যাপারে লিখিত অভিযোগ পাওয়া গেছে,তদন্তপূর্বক আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

Comments are closed.

     এই বিভাগের আরো সংবাদ