আজ ১৭ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ২রা ডিসেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

গাজীপুরে ছাত্রীকে ধর্ষণের অভিযোগে মাদ্রাসার অধ্যক্ষ আটক!

মোহাম্মদ তাজুল ইসলাম, গাজীপুরঃ

গাজীপুরের কাশিমপুরে কিশোরী ছাত্রীকে (১৩) ধর্ষণ ও ধর্ষণের ভিডিও ধারণ করার অভিযোগে এক হাফেজিয়া মাদ্রাসার অধ্যক্ষকে আটক করেছে পুলিশ।
ধারণকৃত ভিডিও ইন্টারনেটসহ সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে দেওয়ার ও মেরে ফেলার ভয় দেখিয়ে গত এক বছর ধরে ধর্ষণ করে আসছিল অভিযুক্ত শিক্ষক। ধর্ষণের শিকার ওই কিশোরী একই মাদ্রাসার ৬ষ্ঠ শ্রেণীর ছাত্রী।

বুধবার (১৭ নভেম্বর) কাশিমপুর থানার ওসি মাহবুবে খোদা এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

আটককৃতের নাম হাদিউজ্জামান (৩৮)। তিনি যশোরের কেশবপুর উপজেলার মির্জাপুর সর্দারপাড়া এলাকার মৃত জাবেদ আলীর ছেলে এবং গাজীপুরের কাশিমপুর থানাধীন বাগবাড়ি এলাকার দারুস সুন্নাহ নূরানী হাফেজিয়া মাদ্রাসার অধ্যক্ষ (প্রিন্সিপাল)।

পুলিশ মামলার বরাত দিয়ে জানান, গাজীপুরের বাগবাড়ি এলাকার দারুস সুন্নাহ নূরানী হাফেজিয়া মাদ্রাসার প্রিন্সিপাল হাদিউজ্জামান। তিনি প্রায় বছর খানেক আগে ওই শিশু শিক্ষার্থীকে ধর্ষণ করেন। ধর্ষণের দৃশ্য কৌশলে ভিডিও করেন তিনি। এরপর ওই ভিডিও ইন্টারনেটসহ সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে দেওয়ার ও মেরে ফেলার ভয় দেখিয়ে শিক্ষার্থীটিকে গত এক বছর ধরে ধর্ষণ করে আসছিলো ওই শিক্ষক। মানসিকভাবে ভেঙ্গে পড়ে ধর্ষণের শিকার ছাত্রীটি মাদ্রাসায় যেতে অনীহা প্রকাশ করে। জিজ্ঞাসাবাদের এক পর্যায়ে সে তার পরিবারকে ঘটনাটি জানায়।

ঘটনাটি জানতে পেরে ওই ছাত্রীর বাবা বাদী হয়ে গত মঙ্গলবার রাতে হাদিউজ্জামানের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেন। পুলিশ অভিযুক্ত শিক্ষককে রাতেই আটক করে। এসময় আটককৃতের কাছ থেকে ধর্ষণের শিকার ওই ছাত্রীর নগ্ন ভিডিওসহ তার একটি মোবাইল ফোন জব্দ করা হয়। আটককৃত মাদ্রাসা শিক্ষক হাদিউজ্জামানের দুই স্ত্রী ও সন্তান রয়েছে।

Comments are closed.

     এই বিভাগের আরো সংবাদ