আজ ২১শে মাঘ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ, ৪ঠা ফেব্রুয়ারি, ২০২৩ খ্রিস্টাব্দ

পোরশায় পুনর্ভবা নদীতে অবৈধ জাল দিয়ে পোনানিধন, বিলুপ্তির পথে নানা প্রজাতির মাছ!

পোরশা (নওগাঁ) প্রতিনিধি:

নওগাঁর পোরশা উপজেলার উপর দিয়ে বয়ে যাওয়া পুনর্ভবা নদীতে অবৈধ জাল ফেলে মাছ শিকারের মহোৎসব চলছে। ছোট ফাঁসের গড়া জাল, কাপাজাল, ভাসা জাল, কারেন্ট জাল, সুতি জালসহ নানা ধরনের অবৈধ জাল দিয়ে মাছ শিকার করছেন জেলেরা। এসব অবৈধ জালে ধরা পড়ে প্রতিদিনই অসংখ্য বিভিন্ন প্রজাতির মাছের পোনা নিধন হচ্ছে। মৎস্য বিশেষজ্ঞরা মনে করছেন, অবাধে মাছের পোনা নিধনযজ্ঞ বন্ধ না হলে অনেক প্রজাতির মাছ বিলুপ্ত হয়ে যাবে।

পোরশা উপজেলার একটি মাত্র নদী পুনর্ভবা। এ নদীর কয়েকটি শাখা প্রবাহমান খাল রয়েছে। এ নদী ও কয়েকটি খাল ঘুরে দেখা যায় শকুনির বিল, মাহারোটের বিল, চন্দের বিল, বোগলা উজ্জল বিলের বিস্তীর্ণ এলাকাজুড়ে খুঁটি গেড়ে ছোট ফাঁসের জাল পেতে অবাধে মাছ ধরা হচ্ছে। নদীতে নৌকা দিয়ে অবৈধ ঐসব জাল দিয়ে চলছে পোনামাছ নিধনের মহোৎসব। এসব অবৈধ জাল দিয়ে জেলেরা পোয়া, টেংরা,আইড়, বোয়াল, পবদা, পুঁটি, গচি,বাইম ও চিংড়িসহ বিভিন্ন প্রজাতির মাছের পোনা ছোট ফাঁসের এসব জালে আটক করছে। ক্ষুদ্রাকৃতির এসব পোনামাছ কেজি দরে বাজারে বিক্রি হচ্ছে। এতে করে দেশের নদ-নদী ও খাল বিলে দেশীয় মাছের সংকট হওয়ার আশঙ্কা রয়েছে। প্রশাসনের নাকের ডগায় পোনানিধনযজ্ঞ অনেকটা ওপেনসিক্রেট হলেও সংশ্লিষ্ট উপজেলা মৎস্য অফিস যেন নির্বিকার। পুনর্ভবা নদী থেকে উপজেলা মৎস্য অফিস মাত্র ১কি: মি:। তবুও নজর নেই মৎস্য কর্মকর্তাদের।

নাম প্রকাশ না করার শর্তে নদীতে মাছ ধরা এক জেলে বলেন, সবাই ধরছে, তাই আমিও ধরি। নদীতে মাছ ধরতে কেউ বাধা দেয় না। যখন প্রশাসন নিষেধ করবে তখন আমরা মাছ ধরা বন্ধ করবো।

উপজেলা মৎস্য কর্মকর্তা মনিরুজ্জামান জেলেরা অবৈধ সুতি জাল দিয়ে পোনামাছ নিধন করছেন বিষয়টি স্বীকার করে বলেন, আমরা এ ব্যাপারে ইউএনও’র সাথে কথা বলে ব্যবস্থা নিব। এতো দিন কেন কোন ব্যবস্থা নেননি জানতে চাইলে মৎস্য কর্মকর্তা কোন সদুত্তর দিতে পারেননি।


Deprecated: Theme without comments.php is deprecated since version 3.0.0 with no alternative available. Please include a comments.php template in your theme. in /home/somoyerb/public_html/wp-includes/functions.php on line 5059

Comments are closed.

     এই বিভাগের আরো সংবাদ